Get a month of TabletWise Pro for free! Click here to redeem 
TabletWise.com
 

হেমোরেজিক স্ট্রোক / Hemorrhagic Stroke in Bangla

বলা: অন্ত্রবৃদ্ধি Hemorrhage, সুবারাচনিয়েড হেমোরেজ

হেমোরেজিক স্ট্রোক এর লক্ষণ

নিচের বৈশিষ্ট্যগুলো হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের নির্দেশক:
  • বিশৃঙ্খলা
  • কথা বলা এবং বোঝার সমস্যা
  • অসাড় অবস্থা
  • দুর্বলতা
  • ঝাপসা দৃষ্টি
  • মাথা ব্যাথা
  • মাথা ঘোরা
  • ভারসাম্য ক্ষতি
এরকম হতে পারে যে হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের শারীরিক লক্ষণ দেখা না দিলেও তা রোগীর দেহে বিদ্যমান থাকতে পারে।

Get TabletWise Pro

Thousands of Classes to Help You Become a Better You.

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের প্রচলিত কারণ

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের সবচেয়ে প্রচলিত কারণগুলো নিম্নরূপ:
  • arteriovenous malformation
  • Anticoagulants সঙ্গে overtreatment
  • উচ্চ রক্তচাপ
  • Aneurysms
  • মানসিক আঘাত

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের ঝুঁকির কারণসমূহ

নিম্নোক্ত নির্ণায়কগুলো হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগ হওয়ার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়:
  • স্থূলতা
  • শারীরিক কার্যকলাপ অভাব
  • অতিরিক্ত মদ্যপান
  • অবৈধ ওষুধ ব্যবহার
  • উচ্চ্ রক্তচাপ
  • সিগারেট ধূমপান
  • উচ্চ কলেস্টেরল
  • ডায়াবেটিস
  • হৃদরোগের
  • প্রতিরোধক ঘুম apnea
  • বয়স বৃদ্ধি
  • পারিবারিক ইতিহাস

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের প্রতিরোধ

হ্যাঁ, হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব হতে পারে। নিচের পদক্ষেপগুলো নিয়ে এই রোগ প্রতিরোধ করা যেতে পারে:
  • ধূমপান এড়ানো
  • স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় রাখা
  • চাপ কে সামলাও
  • শারীরিকভাবে সক্রিয় হতে হবে

হেমোরেজিক স্ট্রোক এর ঘটনা

ঘটনার সংখ্যা

প্রতি বছর সারা বিশ্বে হেমোরেজিক স্ট্রোক এর ঘটনার সংখ্যা নিম্নরূপ:
  • 1 থেকে 10 মিলিয়ন ক্ষেত্রে প্রচলিত

রোগীদের সাধারণ বয়সসীমা

যেকোন বয়সে হেমোরেজিক স্ট্রোক হতে পারে।

যে লিঙ্গের মানুষদের মধ্যে এ রোগ বেশী হয়

যেকোন লিঙ্গের মানুষের হেমোরেজিক স্ট্রোক হতে পারে

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগ শনাক্ত করার জন্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগ শনাক্ত করার জন্য নিম্নোক্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়:
  • রক্ত পরীক্ষা: রক্তের ক্লোজিং সময় এবং কোন সংক্রমণ মূল্যায়ন করতে
  • কম্পিউটারাইজড টমোগ্রাফি স্ক্যান: হেমোরেজ, টিউমার, স্ট্রোক এবং অন্যান্য অবস্থা দেখতে
  • চৌম্বকীয় অনুরণন ইমেজিং: ধমনী এবং শিরা দেখতে এবং রক্ত প্রবাহ হাইলাইট
  • ক্যারোটিড আল্ট্রাসাউন্ড: ক্যারোটিড ধমনীতে ফ্যাটি ডিপোজিট এবং রক্ত প্রবাহের বিল্ডআপ দেখতে
  • সেরিব্রাল angiogram: মস্তিষ্ক এবং ঘাড় ধমনী ইমেজ দেখতে
  • ইকোকার্ডিওগ্রাম: হৃদয়ের বিস্তারিত চিত্র দেখতে

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগ শনাক্ত করার জন্য ডাক্তার

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের উপসর্গ দেখা দিলে রোগীকে নিম্নোক্ত বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা উচিত:
  • স্নায়ুবিশেষজ্ঞ
  • মনোরোগ চিকিৎসক
  • নার্স
  • পথ্যব্যবস্থাবিদ্যাবিৎ
  • শারীরিক থেরাপিস্ট
  • পেশাগত থেরাপিস্ট
  • বিনোদনমূলক থেরাপিস্ট
  • বক্তৃতা থেরাপিস্ট
  • সমাজ সেবী
  • মামলা ব্যাবস্থাপক
  • মনস্তত্ত্বিক

চিকিৎসা না করলে হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের ফলে যেসব জটিলতা দেখা দিতে পারে

হ্যাঁ, হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের চিকিৎসা না করলে শারীরিক জটিলতা দেখা দিতে পারে চিকিৎসা না করলে হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগ থেকে কী কী জটিলতা এবং সমস্যা দেখা দিতে পারে তার তালিকা নিম্নরূপ:
  • পক্ষাঘাত
  • স্মৃতিশক্তি হ্রাস
  • বিষণ্নতা
  • ব্যথা
  • ডিসার্থ্রিয়া
  • dysphagia
  • মস্তিষ্কের ব্যাধির ফলে বাক্শক্তিলোপ

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের চিকিৎসার ধাপসমূহ

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের চিকিৎসার জন্য নিম্নোক্ত ধাপগুলো অনুসরণ করা হয়:
  • অস্ত্রোপচার ক্লিপিং: সম্প্রতি হেমরজেজ করা একটি অ্যানোরিয়াসের পুনরায় রক্তপাত প্রতিরোধ করতে
  • স্টেরিওট্যাকটিক রেডিওসার্গারি: ভাস্কুলার বিকৃতির মেরামত করা
  • ইন্ট্রাক্রানিয়াল বাইপাস: মস্তিষ্কের একটি অঞ্চলে গরিব রক্ত প্রবাহকে বা জটিল ভাস্কুলার ক্ষতগুলি যেমন অ্যানোরিসিম মেরামত

হেমোরেজিক স্ট্রোক এর ক্ষেত্রে নিজে নিজে সেবা

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের চিকিৎসা অথবা ব্যবস্থাপনায় নিজে নিজে সেবা কিংবা জীবনধারায় যেসব পরিবর্তন সহায়ক হতে পারে তার তালিকা নিম্নরূপ:
  • নিয়ন্ত্রণ উচ্চ রক্তচাপ: স্ট্রোক ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে
  • খাদ্যের মধ্যে কোলেস্টেরল এবং সংশ্লেষযুক্ত চর্বি সীমিত করুন: ধমনীতে ফ্যাটি আমানত (প্লেক) হ্রাস করতে সহায়তা করে
  • তামাক ব্যবহার বন্ধ করুন: স্ট্রোক ঝুঁকি হ্রাস করতে সাহায্য করে
  • স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় রাখুন: রক্তচাপ কমিয়ে এবং কলেস্টেরলের মাত্রা উন্নত করতে সহায়তা করে
  • ফল এবং সবজি সমৃদ্ধ একটি খাদ্য খান: স্ট্রোক ঝুঁকি হ্রাস
  • সংযম মদ খাওয়া: স্ট্রোক পরিচালনা সাহায্য করে
  • অবৈধ ওষুধ এড়িয়ে চলুন: স্ট্রোকের ঝুঁকির কারণগুলি প্রতিরোধ করুন

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের চিকিৎসার জন্য বিকল্প ওষুধ

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের চিকিৎসা কিংবা ব্যবস্থাপনার জন্য সহায়ক হতে পারে এমন কিছু বিকল্প ওষুধ এবং থেরাপি নিম্নরূপ:
  • নিয়মিত ব্যায়াম: রক্তচাপ হ্রাস করা, উচ্চ-ঘনত্বের লিপোপ্রোটিন কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ানো এবং রক্তচাপ এবং হৃদয়ের সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উন্নতিতে সহায়তা করে।

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের জন্য রোগীকে চিকিৎসা সহায়তা

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগীদের জন্য কার্যকর হতে পারে:
  • একটি সহায়তা গোষ্ঠীতে যোগদান করুন: স্ট্রোক মোকাবেলা করছে এমন অন্যদের সাথে সাক্ষাত করে চলুন ধৈর্য ধরতে এবং অভিজ্ঞতা ভাগ করে, তথ্য বিনিময় এবং নতুন বন্ধুত্ব তৈরি করতে।
  • বন্ধু এবং পরিবারের সমর্থন: পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সাহায্য করে

হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগের চিকিৎসার সময়

বিভিন্ন রোগীর জন্য চিকিৎসার সময়-সীমা ভিন্ন হলেও যদি একজন বিশেষজ্ঞের তত্ত্বাবধানে যথাযথভাবে চিকিৎসা করা হয় তবে হেমোরেজিক স্ট্রোক রোগ নিয়ন্ত্রণে আসার সময়-সীমা নিম্নরূপ:
  • 6 মাস - 1 বছর

সর্বশেষ আপডেটের তারিখ

এ পৃষ্ঠায় শেষ পরিবর্তন 2/04/2019 আপডেট করা হয়েছে.
এই পৃষ্ঠায় হেমোরেজিক স্ট্রোক সম্পর্কিত তথ্য রয়েছে।

Sign Up